এড়িয়ে চলুন এই ৮টি খাবার পিরিয়ডে পেট ব্যথা মুক্ত থাকতে

উফফ! পিরিয়ড মানেই পেট ব্যথা? আর নয়! আপনার সব ব্যথার অবসান ঘটাতে এবার আমরা হাজির হয়েছি বন্ধুরা! পিরিয়ডের কটা দিন এই ৮ টি খাবার এড়িয়ে চলুন আর অল টাইম ফিট থাকুন! পিরিয়ডে পেট ব্যথা একটি সাধারণ সমস্যা। বলতে লজ্জা নেই আমরা অনেকেই এই সমস্যায় ভুগি। ব্যথা কমাতে আমরা জাস্ট গরম জলের সেঁক দি। কিন্তু জানেন কি কিছু খাবার আছে যেগুলো এই ব্যথা, অস্বস্তি আরও বাড়িয়ে দেয় ওই সময়। তাই পেট ব্যথা যাতে না হয় তার জন্য ওই খাবারগুলি ওই সময় না খাওয়াই ভালো। জেনে কি কি খাবার।

ফাস্ট ফুড : পিরিয়ডের সময় যতটা সম্ভব স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া উচিত। তাই ফাস্ট ফুড এই সময় যতটা পারেন এড়িয়ে চলুন। ফাস্ট ফুড শারীরিক অস্বস্তি, পেট ব্যথা বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই এই সময় এড়িয়ে চলুন।

চা, কফি : যাদের এই সময় পেট ব্যথা হয় তাদের জন্য ওই ক’দিন বেশি চা, কফি একদম ভালো নয়। চা, কফি জাতীয় পানীয়গুলি পেট ব্যথা ও পেটের ভেতর অস্বস্তি বহুগুণে বাড়িয়ে দেয়। তাই এই সময় দিনে একবার চা, কফি ঠিক আছে। খুব বেশি না খাওয়াই শ্রেয়। শুধু চা, কফি নয় যেকোনো নরম পানীয়ও এই সময় ক্ষতিকর। তাই এই জাতীয় সব পানীয় এই সময় এড়িয়ে চলুন।

নুন : যারা নুন খেতে বেশি ভালোবাসেন তারা এই কদিন নুনটা একটু কম করে খান। খুব বেশি নুন এই সময় পেটের অস্বস্তি বাড়িয়ে দেয়। তাই নুন খুব কম খান এই সময়।
চিনি
যদি পিরিয়ডের সময় পেট ব্যথা হবার প্রবণতা থাকে তাহলে এই সময় চিনি বাদ দিন। বাদ দিন মানে অল্প খান। খুব কম। এই সময় চিনি, মিষ্টি যত কম খাওয়া যায় ততই ভালো। এই জাতীয় খাবার শারীরিক অস্বস্তি আরও বাড়িয়ে দেয়।

অ্যালকোহল : পিরিয়ড চলাকালীন অ্যালকোহল বাদ দিন। অ্যালকোহল এই সময় শরীরের জন্য একদম ভালো নয়। অ্যালকোহলে পেট ব্যথার এই সমস্যা আরও বেড়ে যেতে পারে। সেই সঙ্গে শারীরিক অস্বস্তিও বহুগুণে বেড়ে যেতে পারে। তাই ওই ক’দিন অ্যালকোহল খাওয়া বন্ধ রাখুন।
পাঁঠার মাংস

পাঁঠার মাংস এমনিতেই শরীরের জন্য ভালো নয়, আর পিরিয়ডের সময় এটা শরীরের জন্য একদমই ভালো নয়। পাঁঠার মাংস হজম হবার খুব সমস্যা থাকে। আর ঠিক মত হজম হবার অভাবে পেট ব্যথা হতে পারে। এই সময় এমনিতেই ব্যথা হয়। তাই ব্যথা বেড়ে যাবার সম্ভাবনা থাকে।

চকোলেট : চকোলেট খেতে খুব ভালো লাগলেও এই ক’দিন বন্ধ রাখাই ভালো। কারণ চকোলেটে থাকে ক্যাফেইন। যা পেটের ব্যথার ক্ষেত্রে এই সময় ক্ষতিকর। যে কারণে চা বা কফি খেতে বারণ করা হয়।

দুধ : দুধ খেলে এমনিতেই অনেকের পেট ব্যথা করে। অনেকেরই দুধে অ্যালার্জি থাকে। আর এই সময় এমনিতেই পেটে অস্বস্তি, পেট ব্যথা হয়। তাই এই সময় আরোই এটা খাওয়া ঠিক নয়। দুধ জাতীয় খাবারও একইভাবে এই সময় ক্ষতিকর। তাই দুধ ও দুধ জাতীয় খাবার এই সময় এড়িয়ে চলুন।

কমবেশি সবারই পেট ব্যথা হয় এইসময়। আর এই খাবারগুলি এই সমস্যা আরও বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই যতটা সম্ভব এই খাবারগুলি এইসময় এড়িয়ে চলুন। তাহলে শরীর অনেকটা ভালো থাকবে। আর যতটা সম্ভব স্বাস্থ্যকর খাবার খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *